Archive for January, 2014

January 24, 2014

সরকার গণতন্ত্রকে মৃতপ্রায় অবস্থায় নিয়ে গেছে: খালেদা

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অভিযোগ করেছেন, সরকার ‘বাকশালী চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে’ গণতন্ত্রকে মৃতপ্রায় অবস্থায় নিয়ে গেছে। কঠিন লড়াইয়ের মাধ্যমে এই ‘নব্য বাকশালী চেতনার জগদ্দল পাথর’ সরানোর আহ্বান জানান তিনি।

She is just upset that she couldn’t go to power after all that violence. By “hard fight”, she means regular people’s fight, while she takes the ‘halua-rooti’

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো

Advertisements
January 7, 2014

এখন চুপ থাকেন – শেখ হাসিনা

বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘সহিংসতা চালিয়ে নির্বাচন ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছেন। এখন চুপ থাকেন। কোনো কিছুই ঠেকাতে পারবেন না।’

মিডিয়াগুলোকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। তারা অনেক কাজ করেছে, যেটা আমাদের সহযোগিতা করেছে। আবার অনেক কাজ করেছে যেটা সন্ত্রাসে সহায়তা করেছে। আগুনের ছবি দেখিয়েছে। অনেকে আবার দেশলাই দিয়েছে।

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো

Better encourage Khaleda Zia to talk, her support for last few months’ terrorism might be clearer!

Did journalists actually supply fire-starters? Or, Sheikh Hasina made that up?

January 7, 2014

‘উনি (এরশাদ) ভালো আছেন। গলফ খেলছেন’ – শেখ হাসিনা

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘উনি ভালো আছেন। গলফ খেলছেন। অসুস্থ হয়েছেন, চিকিৎসা চলছে।’

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো

In reality, Ershad is detained.

January 2, 2014

নির্বাচনে কেউ বাধা দিতে এলে তাদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলে উপযুক্ত শিক্ষা দিয়ে দেবেন – শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচন বন্ধ করতে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত চলছে। এ ব্যাপারে দেশবাসীর উদ্দেশে তিনি বলেন, গণতন্ত্র রক্ষায় পাঁচ জানুয়ারি নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। নির্বাচনে কেউ বাধা দিতে এলে তাদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলে উপযুক্ত শিক্ষা দিয়ে দেবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংবিধান অনুযায়ী গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে ৫ জানুয়ারি নির্বাচন করতেই হবে।

দুই নেত্রীর ফোনালাপ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি তাঁকে টেলিফোন করলাম। বেলা একটা থেকে চেষ্টার পর সন্ধ্যা ছয়টায় উনি ফোন ধরলেন। প্রথমে আমি বললাম আপনি কেমন আছেন? ভদ্রতাস্বরূপ আমি কেমন আছি সেটা জানতে না চেয়েই উনি (খালেদা জিয়া) ঝগড়া ও ঝাড়ি মারা শুরু করলেন। আমি তো আর তাঁর সঙ্গে ঝগড়া করে পারবো না।

তথ্যসূত্র: ইত্তেফাক